মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, সাতক্ষীরা

ছবি

জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট

মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন

জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, সাতক্ষীরা 

পরিচিতি নং- ৬৬৬৩

বিসিএস ব্যাচ- ২০

পূর্ববর্তী কর্মস্থল- অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ, অর্থ মন্ত্রণালয়

ফোন (অফিস)- ০৪৭১-৬৩২০১

ফ্যাক্স- ০৪৭১-৬৪০০৮

মোবাইল- ০১৭১৫২১২২৭৭

ইমেইল- dcsatkhira.mopa.gov.bd

জনাব মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন, ৬ মার্চ ২০১৮-এ সাতক্ষীরা জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেন। তিনি ২০০১ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ২০ তম ব্যাচের একজন সদস্য হিসেবে সরকারি চাকরীতে যোগদান করেন।

সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদানের অব্যবহিত পূর্বে তিনি অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের উপসচিব হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সেখানে তিনি শুরু থেকেই “গ্রীন ক্লাইমেট ফান্ড” -এর বাংলাদেশের এনডিএ সচিবালয়ে কাজ করেছেন। বাংলাদেশে  “জলবায়ু অর্থায়ন” বিষয়ে তিনি একজন পথিকৃৎ। তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রাণালয়ে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি মাঠপ্রশাসনে; সহকারী কমিশনার ও ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে কুমিল্লা কালেক্টরেটে, সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে ফেনী সদরে, সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও ১ম শ্রেনীর ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে ব্রাহ্মনবাড়িয়া কালেক্টরেটে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে গাইবান্ধা সদরে এবং  ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন।  তাঁর নিজ জেলা রাজশাহীতে হলেও তাঁর বেড়ে ওঠা ও পড়াশোনা ঢাকায়। তিনি তেঁজগাও সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাব বিজ্ঞানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ডিএফআইডি স্কলারশিপ নিয়ে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উন্নয়ন অর্থনীতি বিষয়ে আরেকটি স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেছেন।   তিনি একসময় ক্লাব পর্যায়ে নিয়মিত ক্রিকেট খেলতেন এবং এখনো ক্রিকেট, ফুটবল, টেনিস সহ বিভিন্ন খেলাধুলায় আগ্রহের সাথে অংশগ্রহন করেন। তিনি অবসর সময়ে বই পড়তে পছন্দ করেন। তিনি বিবাহিত এবং তাঁর সহধর্মিনী মিসেস সাদিয়া নুসরাত ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক ও ডেভেলপমেন্ট স্টাডিসে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন।উল্লেখ্য মিসেস সাদিয়া নুসরাত সাতক্ষীরা কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেছেন। তাঁদের তিন পুত্র রামিন, শাফিন ও হামিম। তারা এবং তাদের দাদীমা সাতক্ষীরায় এসে খুব আনন্দিত।        

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter