মেনু নির্বাচন করুন

৭১ নং টেংরাখালী রেজিঃ বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

                                          বিদ্যালয়ের সংক্ষিপ্ত বর্ননাঃ

 

শ্যামনগর উপজেলাধীন ৬ নং রমজাননগর ইউনিয়নের টেংরাখালী গ্রামে দ্বিতল ভবন বিশিষ্ট এই বিদ্যালয়টির ৬টি কক্ষ আছে। এর উত্তরদিকে কৈখালী ইউনিয়ন, দক্ষিনে ৭৭ নং কালিঞ্চী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্বদিকে মীরগাং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং পশ্চিম দিকে মাদার নদী প্রবাহিত।

 

জমির পরিমানঃ ৫০ শতক । বিদ্যালয়ে একটি ছোট খেলার মাঠ ও একটি পুকুর আছে। বিদ্যালয়টি  দক্ষিনমূখী সদর।এর উত্তর পার্শ্ব দিয়ে কেয়ার এর রাস্তা।

 

 

 

 

                                                      বিদ্যালয়ের ইতিহাসঃ

 

সাতক্ষীরা জেলার  শ্যামনগর উপজেলাধীন ৬ নং রমজাননগরে অবস্থিত টেংরাখালী গ্রাম। এই গ্রামের শতভাগ লোক দরিদ্র। শিক্ষার আলো এদের ভিতরে ছিলনা বললেই চলে। কোন বিদ্যালয় গ্রামে নাথাকায় অধিকাংশ মানুষ ছিল শিক্ষা বঞ্চিত। ১৯৯১ সালের জানুয়ারী মাসে তৎকালীন ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আলমগীর  হায়দারের উদ্যোগে মৃত মান্দার গাজী  সাহেবের স্ত্রী  কুলছুম বিবি  বিনা টাকায় এলাকার স্বার্থে .৫০ শতক জমি রেজিষ্ট্রি করে দিয়ে  পার্শ্ববর্তি গ্রাম কালিঞ্চী থেকে ২ জন ও ভেটখালী থেকে ২ জন শিক্ষক মোট ৪ জন শিক্ষক বিনা বেতনে বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুদের পড়ালেখা শুরু করেন। প্রথমে এলাকার মানেুষের স্বেচ্ছা শ্রমে খড়ের ঘর করতে স্থানীয় বন বিভাগ ও চেয়ারম্যান সাহেবে সহায়তায়  ঘরটি  নির্মিত হয়। তৎকালীন এমপি জনাব এ কে ফজলুল হক সাহেব সরকার কর্তৃক ২ টন চাউল  দিয়ে জায়গাটি ভরাট করে দিন। পরিশ্রমী শিক্ষক মন্ডলী ও এলাকার অভিভাবক বিশেষ করে  মরহুম চেয়ারম্যান সাহেবের একান্ত অনুপ্রেরনায়  বুত্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা কৃতিত্ব দেখাতে থাকে।  ইতিমধ্যে  আঃ ছাত্তার (দোলন)  নামে  প্রতিষ্ঠাকালের ৪র্থ শিক্ষক বেতন না পাওয়ার কারনে  শ্রমিক হিসাবে কুয়েত গমন করেন এবং রেখা নামের অন্য একজন  চাকরী ছেড়ে দেন।  বাকী প্রথম ও দ্বিতীয় শিক্ষক  অক্লান্ত পরিশ্রম করে প্রতিবছর   বৃত্তি পরীক্ষায় সাফল্য দেখাতে  দেখাতে থাকলে ১৯৯৯ সালে বিদ্যালয়টি ৩ কক্ষ বিশিষ্ট শ্রেনীকক্ষ ও অফিসসহ একতলা বিল্ডিং হয়। সাফল্যের  ধারাবাহিকতায়  ২০০৪ সালে উপরে আরও তিনটি কক্ষ নির্মিত হয়। বর্তমানে টেংরাখালী গ্রামে একটি দ্বিতল ভবন স্ব মহিমায়  দাড়িয়ে আছে। এ বিদ্যালয়টি ফলাফলের দিক দিয়ে ইউনিয়নের শ্রেষ্ঠ তো বটেই  এমকি আস্থা ও পরিবেশ গত দিক দিয়ে উপজেলা শ্রেষ্ঠ। অথচ এর উদ্যোক্তা সেই শেখ আলমগীর হায়দার ২০০৮ সালে এই টেংরা খালীতেই   চির নিদ্রায় শায়িত হয়েছেন। ভূমিদাতা কুলছুম বেগম বেচে আছেন। তিনি বিদ্যালয়ে প্রায়ই আসেন। তারই জমিতে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়ে শতশত কোমলম শিশুর আগমন তাকে মুগ্ধ করে। বর্তমানে ৪জন দক্ষ ও কর্মঠ শিক্ষক কর্মরত। এই বিদ্যালয়ের অনেক ছাত্র ছাত্রী  দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিগ্রি অর্জন শেষে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত। এই বিদ্যালয়ের সাফল্য দেখে এলাকা বাসী গর্বিত।

 

 

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
জি এম আবুল কাশেম 0 kasem@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

শ্রেনী ভিত্তিক ছাত্র/ ছাত্রীর সংখ্যা- ইং -২০১২

শ্রেনী

 

ছাত্র

ছাত্রী

শিশু শ্রেনী

৩০

৩০

১ম শ্রেনী

২৯

২৫

২য় শ্রেনী

৩২

২৯

৩য় শ্রেনী

২৯

২৩

৪র্থ শ্রেনী

১৪

৩৭

৫ম শ্রেনী

১৭

২৩

সর্বমোট

১৫১

১৬৭

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

                     সর্বমোট ছাত্র/ছাত্রীঃ ৩১৮ জন

১০০%

                                    কমিটির বিবরণী - পাতা নং ১ 

                                 বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির বিবরণীঃ

 

ক্রমিক নং

সদস্য/ সদস্যা বৃন্দের নাম

পদবী

1.  

 মো; আব্দুল মজিদ

সভাপতি

2.  

মোঃ নূরল ইসলাম

 সহ সভাপতি

3. 

জি,এম আবুল কাশম

সদস্য সচিব

4.  

মোঃ আঃ বারী

 ইউপি সদস্য

5.  

মোঃ আঃ করিম

বিদ্যোৎসাহী  পুরুষ সদস্য

6.  

মোছাঃ মর্জিনা বেগম

বিদ্যোৎসাহী মহিলা সদস্য

7.  

স্বরবানু বিশ্বাস

শিক্ষক প্রতিনিধি

8.  

মোঃ আঃ সালাম কয়াল

ছাত্র অভিভাবক

9.  

আঃ রশিদ কয়াল

10.               

মোছাঃ মেহেরুন্নেছা

৪র্থ শ্রেনীর মেধাবী অভিভাবক

11.

বিশাখা রানী মন্ডল

ছাত্র অভিভাবক

12.               

ক্ষিতিশ চন্দ্র  মন্ডল

মাধ্যমিক শিক্ষক প্রতিনিধি

 

 

 

 

 

 

 

 

           

 

 

          কমিটির বিবরণী - পাতা নং ২

 

 

        কমিটির নামঃ শিক্ষক অভিভাবক কমিটি(পিটিএ)

 

 

ক্রমিক নং

সদস্য বৃন্দের নাম

পদবী

মোঃ হযরত আলী

সভাপতি

জি,এম আবুল কাশেম

সচিব

     ৩

মোঃ আবু বাক্কার

সদস্য

     ৪

মোঃ আঃ মজিদ

’’

     ৫

রমজান আলী

’’

     ৬

আঃ সালাম কয়াল

’’

     ৭

 আঃ হান্নান

’’

     ৮

মোছাঃ রাশিদা বেগম

’’

     ৯

শ্রী গোকুল চন্দ্র মন্ডল

’’

১০

মোঃ মোকছেদ মোল্যা

’’

১১

মোছাঃ দোলনা বেগম

’’

 

 

 

 

 

 

 

 

          কমিটির বিবরণী -পাতা নং ৩ 

 

            বিদ্যালয়ের স্লিপ কমিটি

                     

 

 

ক্রমিক নং

সদস্য বৃন্দের নাম

পদবী

০১

মোঃ আঃ মজিদ

আহবায়ক

০২

জি,এম আবুল কাশেম

সচিব

০৩

রেবেকা সুলতানা

সদস্য

০৪

মোঃ হযরত আলী

সদস্য

০৫

আনিছুর রহমান

সদস্য

০৬

রাশিদা বেগম

সদস্য

০৭

ধনঞ্জয় কুমার বৈদ্য

সদস্য

০৮

স্বরবানু বিশ্বাস

সদস্য

০৯

আকলিমা বেগম

সদস্য

 

 

 

 

 

                                বিগত ৩ বছরের সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল

 

বছর

অংশগ্রহন কারীর সংখ্যা

উত্তীর্নের সংখ্যা

অনুত্তীর্ন

পাশের হার

২০০৯

২৭ জন

২৭ জন

০ জন

১০০%

২০১০

২৭ জন

২৭ জন

০ জন

১০০%

২০১১

২৭ জন

২৭ জন

০ জন

১০০%

 

                                  শিক্ষা বৃত্তির তথ্য সমূহ-২০১১ ইং

 

         মোট শিক্ষার্থী -২৪১ জন ।

          সুবিধা ভোগী -২০২ জন।

 

                                                      অর্জন/ সফলতা

 টেংরাখালী এমন একটি গ্রাম যেখানে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিলোনা। ১৯৯১ সালে বে সরকারী একটি প্রাথমি বিদ্যারয় প্রতিষ্টার পর অনেক কিছু অর্জন হয়েছে। এ গ্রামের প্রায় শতভাগ শিশু বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। এ বিদ্যালয়টি ফলাফলের দিক দিয়ে ইউনিয়নের শ্রেষ্ঠ তো বটেই  এমকি আস্থা ও পরিবেশ গত দিক দিয়ে উপজেলা শ্রেষ্ঠ। বর্তমানে ৪জন দক্ষ ও কর্মঠ শিক্ষক কর্মরত। এই বিদ্যালয়ের অনেক ছাত্র ছাত্রী  দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিগ্রি অর্জন শেষে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন সংস্থায় কর্মরত।এ বিদ্যা্যলয় থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৩০ জন শিক্ষার্থী  ৫ম শ্রেনীতে বৃত্তি পেয়েছে। দরিদ্র সত্বেও এলাকা বাসী শিক্ষার প্রতি অনুরাগী এই বিদ্যালয়ের সাফল্য দেখে এলাকা বাসী যেমন গর্বিত তেমনি আমিও  গর্বিত।

 

                                                     ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাঃ

জাতীয় করণ  না হওয়ায়  শিক্ষক গন হতাশা গ্রস্থ ।তার পরও এনজিও কর্তৃক সোরল নিয়েছি। রাত্রি কালীন কোচিং এর মাধ্যমে ফলাফল আরও উন্নত  করতে চাই।  এলাকে নিরক্ষর মুক্ত করতে চাই। বিদ্যালয়ের  সর্বিক সফলতায় জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে চাই।

                                                 যোগাযোগ

 

                              প্রতিষ্ঠান প্রধানের নামঃ জি এম আবুল  কাশেম ।

 

                           পদবীঃ প্রধান শিক্ষক

              ৭১ নংটেংরাখালী রেজিঃ বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়

 

   ঠিকানাঃ গ্রাম- টেংরাখালী,ডাকঘর- ভেটখালী, উপজেলা- শ্যামনগর, জেলা-       সাতক্ষীরা।

                     মোবাইল নংঃ ০১৭২১৩৬৯৪১৪।

 

                  

মেধাবী ছাত্র ছাত্রীর তালিকা।

 

 

১।মোছাঃ ফিরোজা পারভীন

২। মোঃ হোসেন আলী

৩। মোঃ মনিরুজ্জামান

৪। রুহুল আমিন

৫। আনজুরা পারভীন

৬। মোঃ মনিরুজ্জামান

৭। সুমিত্র বালা

৮। আজিবর রহমান

৯। তানিয়া খাতুন

১০।আব্দুর রহমান

১১। মুক্তা নাহার

১২। মোঃ মনিরুজ্জামান

১৩। আরিনা খাতুন

১৪। শারমীন সুলতানা সুমী

১৫। খাদিজা পারভীন

১৬। জাকির হোসেন।

 

 

 



Share with :

Facebook Twitter